ভৈরবে ১৭ জন করোনা রোগী সনাক্ত, নতুন ১ জন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যু - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Saturday, June 6, 2020

ভৈরবে ১৭ জন করোনা রোগী সনাক্ত, নতুন ১ জন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যু

মোঃ নাঈম মিয়া  ভৈরব, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  

কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় আজ ৫ জুন শুক্রবার   নতুন করে  ১৭জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়েছে।এবং নতুন ১জন করোনা ভাইরাস  আক্রান্ত ব্যাক্তির মৃত্যু। 
 এর আগে গত বৃহস্পতিবার শহরের আমলাপাড়া এলাকায় করোনা  উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া মাছ ব্যবসায়ী উত্তম কুমার দেবনাথের (৬০) পজিটিভ  এসেছে।  

আজ ৬ জুন শনিবার  উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ বুলবুল আহমেদ এসব তথ্য দিয়েছেন।
তিনি ভৈরব উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্যসচিব।
ভৈরবে নতুন শনাক্ত ১৭ জনের টেষ্ট করা হয় ৩১মে  তারিখে রিপোর্ট আসে আজ ৫  জুন শুক্রবার। 
৩১মে  তারিখে ভৈরব উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে আসা ৪৪জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। তাদের মধ্যে আজ ১৭ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এবং ২৭ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বুলবুল আহমেদ।তিনি আরো জানান, ভৈবর মোট আক্রান্ত হলো ২০০জন। এখন পর্যন্ত ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মোট ১৩৪৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তার মধ্যে রেজাল্ট আসছে১০৭৩জনের। তাদের মধ্যে  ২০০জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে  মোট মৃত্যু ৪জন  এবং ৬৬ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন  গেছে।তাছাড়া গত ১,৩,৪ই জুন এর সংগ্রহকৃত নমুনার রিপোর্ট এখনো পেন্ডিং আছে।ভৈরবের পরিস্থিতি অবনতির দিকে যাচ্ছে। ভীড় পরিহার করুন, সোসাল ডিসট্যান্সিং বজায় রাখুন। স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশিকা মেনে চলুন। নিজেকে নিরাপদ রাখুন। এদিকে ঈদের পর আবারও ভৈরবে করোনাভাইরাস শনাক্ত এবং মৃতের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় উপজেলা প্রশাসন গতকাল শুক্রবার থেকে আগামী ২০ জুন শনিবার পর্যন্ত ১৫ দিনের জন্য এখানকার সকাল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে।এই সময়ে ওষুধ ও কাঁচামালের দোকান দোকান ছাড়া সব বন্ধ থাকবে। তবে ধান-চালের আড়ৎ সকাল ১০টা থেকে ৪টা এবং পেঁয়াজ-রসুনের আড়ৎ সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।এইসব তথ্য জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লুবনা ফারজানা। তিনি আরও জানিয়েছেন, নতুন শনাক্তের কারণে বেশ কিছু এলাকা লকডাউনসহ ওই এলাকার আশে পাশের মানুষজনের চলাচল সীমিত করে গণবিজ্ঞপ্তি জারী করা হয়েছে।আজ শনিবার থেকে লকডাউন ও চলাচল সীমিত করা এলাকাগুলি হলো-কমলপুর গাছতলাঘাট কাদের মিয়ার বিল্ডিং (কমলপুর মাদ্রাসার বিপরীতে), ভৈরব বাজারে মা বাবা ভবন (ছবিঘর কমপ্লেক্সের পিছনে), বঙ্গবন্ধু স্মরণীতে বাটা শো রুমের ৩য় তলা, বঙ্গবন্ধু স্মরণীতে এপেক্স শো রুমের ৪র্থ তলা, ভৈরবপুর উত্তরপাড়া শানু মিয়ার বিল্ডিং ৩য় তলা (রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজের পূর্ব পাশে)।চন্ডিবের মধ্যপাড়ার শাহাদাৎ আলীর বাড়ি, ঘোড়াকান্দার মালিক ভরসা বিল্ডিং, কমলপুর বাসস্ট্যান্ড মরহুম গিয়াস উদ্দিন (সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান) এর বাড়ি, ভৈরবপুর মধ্যপাড়া মনির ভবন, ঘোড়াকান্দা বউবাজার এর হাজী সেন্টু মিয়ার বাড়ির ভাই ভাই বিল্ডিং, কমলপুর পশ্চিমপাড়া হাজী শামসুদ্দিন আহমেদের বাড়ি (ঈদগাহের পাশে), ভৈরবপুর মধ্যপাড়া ছাবর আলী হাজীর বাড়ি (মডেল স্কুলের সামনে)।
চন্ডিবের হিরণ মিয়ার বাড়ি (মির্জা সুলায়মান মিয়ার বাড়ির সামনে), চন্ডিবের হাজী রবিউল্লাহর বাড়ি, ভৈরব বাজারের আব্দুল মোমেন মিয়ার বাড়ি, ভৈরব রেলওয়ে কলোনীর জসিম উদ্দিনের বাসা, শিমুলকান্দির মধ্যেরচরের দ্বীন ইসলামের বাড়ি, ভৈরব বাজারের রাণীবাজারের শাহী মসজিদের সাথের রতন রায় ভবন ও ভৈরবপুর দক্ষিণপাড়া হেলাল টাওয়ার।

No comments:

Post a Comment

Pages