রামগঞ্জ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতিকে মিথ্যা মামলা ফাঁসানোর অভিযোগ - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Saturday, May 9, 2020

রামগঞ্জ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতিকে মিথ্যা মামলা ফাঁসানোর অভিযোগ

রামগঞ্জ সরকারী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মোরশেদুল আমিন বাবুকে মিথ্যা মামলা ফাঁসানোর অভিযোগ উঠেছে। সৃষ্ট ঘটনায় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী ও লামচর ইউপিবাসীদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
সুত্রে জানায়,উপজেলার লামচর ইউপি যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী আব্দুল অদুদের সাথে কালিকাপুর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারন সম্পাদক তারেক হোসেনের ত্রানের অনিয়ম নিয়ে ১লা মে শুক্রবার সন্ধ্যায় বৈশের হাট বাজারে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২রা মে শনিবার সন্ধ্যায় লামচর গ্রামে যুবলীগের দু‘গ্রপের সংঘর্ষে ইউপি আ‘লীগের সভাপতি আবুল খায়ের ভুইয়াসহ উভয় গ্রুপের ৭জন আহত হয়।সৃষ্ট ঘটনা ৫ মে বিকেলে উপজেলা ও পৌর আ‘লীগ এবং সহযোগী সংগঠন দলীয় কার্যালয়ে বৈঠক করে মেম্বার আজাদ হোসেনের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করার পর রাতেই ছাত্রলীগের সভাপতি মোরশেদুল আমিন বাবু সহ ১০জনকে আসামী করে দাসপাড়া গ্রামের আহত যুবলীগ কর্মী শফিকুল ইসলাম বাদি হয়ে রামগঞ্জ থানা একটি মামলা দায়ের হয়। উক্ত মামলাতে বাবুকে ৩নং আসামী করা হয়েছে। ছাত্রলীগ নেতা রবিন,এমরান সহ কয়েকজন বলেন,রামগঞ্জ সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মোরশেদুল আমিন বাবু দেশে লকডাউন শুরু হওয়ার পরে প্রশাসন ও চেয়ারম্যানের সাথে মানুষকে ঘরে রাখা, খাদ্য সংকটে থাকায় পরিবারে খাদ্য পৌছে দেওয়া এবং লকডাউনে থাকা পরিবারে ধান কেটে ঘরে তুলে দেয়। এতে বাবু শুধু ইউনিয়ন নয় উজেলাব্যাপী আলোচিত হয়। জনপ্রিয় হয়ে উঠাই র্স্বান্বেষী মহল সংঘর্ষের ঘটনায় দায়ের করা মামলা তাকে রাজনীতি প্রতিহিংসা মূলক আসামী করা হয়েছে। মোরশেদুল আমিন বাবু বলেন,লামচরে সংঘর্ষে সময় আমি পৌর শহরে দলীয় একটি অনুষ্ঠানে ছিলাম। অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পরে আমি ঘটনাটি শুনেছি। সংঘর্ষের ঘটনা নিয়ে আ‘লীগের দলীয় কার্যালয়ে ৫ মে বিকেলে বৈঠক হওয়ার পরে রাতে আমাকে আসামী করে মামলা রুজু হয়।

No comments:

Post a Comment

Pages