রামগঞ্জে সম্পত্তির লোভে অন্ধ বাবাকে পিটিয়ে জখম করলো ছেলে ||amarkhobor24 - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Thursday, May 7, 2020

রামগঞ্জে সম্পত্তির লোভে অন্ধ বাবাকে পিটিয়ে জখম করলো ছেলে ||amarkhobor24

সম্পত্তির লোভে অন্ধ বাবাকে প্রচণ্ড মারধর করে রক্তাত্ব করলো রামগঞ্জ পাট বাজার মসজিদের ইমামবৃদ্ধ বাবা আফতাব উদ্দিন (৯০)। গ্রাম রামগঞ্জ উপজেলার করপাড়া ইউনিয়নের পশ্চিম করপাড়া বড় বাড়ী। দীর্ঘ ৪২ বছর সিনিয়র শিক্ষক হিসাবে কর্মরত ছিলেন রামগঞ্জ উপজেলার কচুয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসায়। ৯ছেলের মধ্যে ৪ ছেলে ঢাকা ও প্রবাসে। সবচেয়ে ছোট ছেলের বড় জন বদরোদ্দৌজা (৩২)। রামগঞ্জ পাটবাজার দারুস সালাম জামে মসজিদের ইমামতি করেন। বাসা নিয়ে থাকেন রামগঞ্জ কাটবাজার সড়কের একটি ভবনে। বর্তমানে তিনি অন্ধ অবস্থায় ঘরে শয্যাশায়ী।
রক্তাত্ব বৃদ্ধ বাবা আফতাব উদ্দিন আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জানান বুধবার ফজরের নামাজের পর বাড়ীর সম্পত্তি লিখে দেয়ার কথা বলায় আমি অন্য ভাইদের সাথে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা বলার সাথে সাথে আমার লাঠি দিয়ে আমাকে প্রচ- মারধর করে। এসময় আমি তাকে অনুনয় বিনয় করেও রক্ষা পাইনি। আজ আমরা স্বামী স্ত্রী সেহেরী ছাড়া রোজা রেখেছি। তার মারধরের সময় আশেপাশের বাসার অন্য লোকজন এগিয়ে আসলে ছেলে বদরোদ্দৌজা তাদেরকেও মারা জন্য তেড়ে আসে।
ছেলের মারধরে আহত বৃদ্ধ বাবাব আফতাব উদ্দিনকে হসপিটালে নেয়ার চেষ্টা করলে পাটবাজার মসজিদের ইমাম বদরোদ্দৌজা মসজিদ কমিটির সভাপতি তার ছেলে নিকটাত্মীয় বলে পরিচয় দিয়ে স্থানীয় লোকজনকে ভয়ভীতি দেখায়।
এদিকে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে রামগঞ্জ পাটবাজার দারুস সালাম জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি শহিদ উল্যা ও তার ছেলে বাবলু বিষয়টি ধামাচাপা দিয়ে ইমাম বদরোদ্দৌজাকে মানসিক বিকারগ্রস্থ বলে দাবী করেন।
কেন একজন অপ্রকৃতস্থ ব্যক্তিকে মসজিদের ইমাম নিয়োগ করা হলো এমন প্রশ্নের জবাবে মসজিদ কমিটির ক্যাশিয়ার হারুন অর রশিদ ওরফে চাঁদা হারুন জানান আমরা আগে বুঝতে পারিনি। আমরা রেজুলেশন করেছি তাকে বের করে দেয়া হবে।
তবে উক্ত ইমাম বদরোদ্দৌজা থেকে ক্যাশিয়ার হারুন অর রশিদ বিভিন্ন সময়ে অবৈধ সুবিধা নেয়ার কথা জানালেও হারুন অর রশিদ তা অস্বীকার করেন।
এদিকে স্থানীয় লোকজন উক্ত ইমাম মসজিদে ইমামতি করলেও সে গত কয়েকবছরে ৪টি বিয়ে করেছেন। স্ত্রীদের মারধর করায় একের পর সব স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে গেছেন। বর্তমানে সে রামগঞ্জ কাঠ বাজারের একটি বাসায় ভাড়া থাকেন।
এ ব্যপারে ইমাম বদরোদ্দৌজা জানান, আমার হিসাব নিকাশ বুঝিয়ে দিচ্ছে না তারা (বাবা-মা)। আমি তাদেরকে খাওয়াচ্ছি। আমার মা রান্নায় তেল বেশি খরছ করে।
রামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জানান, আগে বৃদ্ধ মানুষটিকে হসপিটালে ভর্তি করা দরকার, চিকিৎসা দরকার। তারপরে অভিযোগ পেলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

No comments:

Post a Comment

Pages