রামগঞ্জে কাঞ্চনপুর ইউপির বিতর্কিত কার্ডগুলো পৌছলো কার্ডধারীদের হাতে - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Wednesday, April 22, 2020

রামগঞ্জে কাঞ্চনপুর ইউপির বিতর্কিত কার্ডগুলো পৌছলো কার্ডধারীদের হাতে

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর)প্রতিনিধিঃ    
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ০১ নং কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের পুর্ব শেখপুরা ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য লিটন ঢালির বিরুদ্ধে ১০ টাকা মুল্যের চাউলের কার্ড আটকে রাখার অভিযোগটি তদন্ত করেছে কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন পরিষদ। জানা যায়,সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসুচির আওতাধীন কাঞ্চনপুর ইউপির পুর্ব শেখপুরা ওয়ার্ডের ১৪ টি কার্ডে অনিয়মের অভিযোগ উঠে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে।এরই মধ্যে হাজী বাড়িতেই ১০ টি কার্ডের মধ্যে ০১ টি পরিবারে কামাল হোসেন,স্ত্রী রত্না ও মেয়ে ইসরাতের নামে ০৩ টি কার্ড, নুরুল ইসলাম ও স্ত্রী জাহানারা  বেগমের পরিবারে একই ঘরে ২ টি কার্ডের চাউল তুলছেন।এমতাবস্থায় ওই ওয়ার্ডের অনেক হতদরিদ্র পরিবার কার্ড না থাকায় চাউল পাচ্ছে না দেখে ইউপি মেম্বার লিটন ঢালি হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে চাউল তুলে দেন।ইউপি সদস্য লিটন ঢালি বলেন,আমি ওয়ার্ডের জনপ্রতিনিধি হওয়ায় লোকজন নানাবিধ সমস্যা নিয়ে আমার কাছে আসে।কয়েকজন অসহায় পরিবার চাউলের অভাবে রান্না করতে পারছে না শুনে আমি নিজ উদ্যোগে যাদের ঘরে ২/৩ টি করে কার্ড আছে সেখান থেকে ২/১ টি করে ১৪ টি কার্ডের চাউল কার্ড না থাকা গরিবদের চাউলের ব্যাবস্থা করে দেই।অনেকেই ভাবছেন প্রতি মাসে সরকার চাউল দিচ্ছেন তাই তারা আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছেন।তবে এটি শুধুই ভুল বুঝাবুঝি।আমি শুধু মানবিকতা বিবেচনা করে উক্ত কাজটি করেছি। ইউপি চেয়ারম্যান নাছির উদ্দীন খান বলেন,কার্ডধারীরা চাউল পাচ্ছে না এই ধরনের কোন অভিযোগ আমাকে জানায় নি,চাউল না পেলে সরাসরি আমাকে জানানো উচিত ছিল।আমি বিস্তারিত জানতে পেরে বিতর্কিত সেই ১৪ টি কার্ড ২২ই এপ্রিল বুধবার ইউপি সচিব ও চৌকিদারের মাধ্যমে কার্ডধারীদের হাতে পৌছে দেওয়ার ব্যাবস্থা করেছি ।

No comments:

Post a Comment

Pages