নড়াইলে চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগে দুজন ডিলারের নামে মামলা গ্রফতার-১ - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Monday, April 27, 2020

নড়াইলে চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগে দুজন ডিলারের নামে মামলা গ্রফতার-১

উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ 

নড়াইলের পল্লীতে  সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর আওতায় দশ টাকা কেজি দরের চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগে দুজন ডিলারের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক বাদী হয়ে সোমবার(২৭ এপ্রিল) 
নড়াইলের লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করেন। উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধি জানান,  অপরদিকে, চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে পুলিশ সাবেক মেম্বর মোঃ আশরাফ আলীকে গ্রেফতার করেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে সরকার হৃত দরিদ্রদের জন্য দশ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রি করছে। প্রতিটি কার্ডধারী দশ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্ছ ত্রিশ কেজি চাল কিনতে পারবেন। দরিদ্রদের সেই চাল বিক্রিতে চরম অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। লাহুড়িয়া ইউনিয়নের দিননাথপাড়া এলাকার ডিলার মোঃ জিল্লুর রহমান ও নোয়াগ্রাম ইউনিয়নের নোয়াগ্রাম এলাকার ডিলার সৈয়দ ফয়জুল কবীর লিপুর বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোঃ মান্নান আলী বাদী হয়ে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন বলে জানান।
ডিলার মোঃ জিল্লুর রহমান জানান, চরবালিদিয়া, কালিনগর,বলাডাঙ্গা, সায়মানারচর, দিননাথপাড়াসহ ঝামারঘোপ ও চরঝামারঘোপ গ্রামের আংশিক আমার দায়িত্বে। আমার অধীন পাঁচশত কার্ডধারী রয়েছে। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একাধীক লোক জানায়, লাহুড়িয়ার দিননাথপাড়া এলাকার ডিলার জিল্লুর রহমান, লাহুড়িয়া পশ্চিমপাড়ার ডিলার তানভীর, শরসুনা-মাকড়াইল-শালনগর এলাকার ডিলার সাজ্জাদ এর বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ বেশি। এখানে বেনামী কার্ডধারী বেশি। তাছাড়াও অনেকেই জানেনা তাদের নামে কার্ড আছে। অথচ ওই সব কার্ডের অধীন চাল উত্তোলন করে আত্মসাৎ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। অভিযুক্ত ডিলাররা বলছেন, আমরা সঠিক নিয়মেই চাল বিতরণ করছি। সামাজিকভাবে হেয় করবার জন্য বিশেষ মহল গুজব রটাচ্ছে।
লোহাগড়া উপজেলা চেয়ারম্যান সিকদার আব্দুল হান্নান রুনু বলেন, লাহুড়িয়া এলাকায় অনেক ভূয়া কার্ড আছে বলে বিভিন্ন সূত্রে জেনেছি। লোহাগড়ার সহকারী কমিশনার(ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাখী ব্যানার্জী বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে (সোম ও রবিবার) দুদিন লাহুড়িয়া ও নোয়াগ্রামে গিয়ে তদন্ত করেছি। অনিয়ম পরিলক্ষিত হওয়ায় দুজন ডিলারের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
এদিকে,খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর আওতায় দশ টাকা কেজি দরের চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে রবিবার গভীর রাতে লোহাগড়া থানার এস,আই মিল্টন কুমার দেবদাস অভিযান চালিয়ে লোহাগড়ার জয়পুর ইউনিয়নের আড়িয়ারা গ্রামের মৃত হেমায়েত শেখের ছেলে সাবেক মেম্বর আশরাফ আলী(৫৫)কে আটক করে।
লোহাগড়া থানার ওসি সৈয়দ আশিকুর রহমান দুজন ডিলারের নামে মামলা দায়েরের কথা নিশ্চিত করে বলেন, সাবেক মেম্বর আশরাফ আলীকে সোমবার জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। গত ১৬ এপ্রিল কালোবাজারে চাল বিক্রিকালে ৫০ কেজি চাল ধরা পড়ে। ওই ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলায় আশরাফ আলী কে গ্রেফতার করা হয়েছে। উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধি।   

No comments:

Post a Comment

Pages