কর্মহীন বেদে পল্লীর বাসিন্দাদের মাঝে ভৈরব থানা পুলিশের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Friday, April 3, 2020

কর্মহীন বেদে পল্লীর বাসিন্দাদের মাঝে ভৈরব থানা পুলিশের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

মোঃ নাঈম মিয়া ভৈরব (কিশোরগঞ্জ)  প্রতিনিধিঃ৷ 
করোনা ভাইসার সংক্রামণ প্রতিরোধে সারদেশে অঘোষিত লক ডাউন চলার কারণে দিনমজুর লোকজন তাদের কর্মে ফিরতে না পেরে গরীব মানুষজন অসহায় মানবেতর জীবন যাপন করেছে। সেই দিক বিবেচনা করে সরকারের পক্ষ থেকেও সারাদেশে প্রশাসনের মাধ্যমে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হলেও তা দিয়ে প্রয়োজনীয় চাহিদার মেটানো সম্ভব নয়। এই ক্রান্তিলগ্নে সমাজের বিত্তবান লোকজন অসহায় মানুষের পাশে না দাঁড়ালে পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে বলে সচেতন মহল ধারণ করছেন। সেই তাগিদ থেকেই বিভিন্ন এলাকার জনপ্রতিনিধি ও সমাজের বিত্তবান লোকজন তাদের সামর্থ অনুযায়ী অসহায়দের সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসছে। কিশোরগঞ্জের ভৈরবে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কর্মহীন বেদে পল্লীর বাসিন্দাদের মাঝে ঘরে ঘরে গিয়ে নিজ উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন ভৈরব সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার (এএসপি) মোঃ রেজওয়ান দীপু ও ভৈরব থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ শাহিনসহ পুলিশের সদস্যরা ।শুক্রবার (৩ এপ্রিল)দুপুরে ভৈরবের পৌর শহরের কমলপুরে সাতমুখি বিলের পাশে বসবাসরত অর্ধশতাধিক বেদে পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, আলু, পিয়াজ ও তেলের খাদ্য সামগ্রী  বিতরণ করেন।এ সময় ভৈরব সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার (এএসপি) মোঃ রেজওয়ান দীপু বলেন, বর্তমান করোনা পরিস্থিত মোকাবিলায় সরকারের নির্দেশ মেনে অনেক মানুষ ঘরে রয়েছে। যার ফলে কর্মহীন হয়ে পড়েছে খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ। এদিকে ভৈরবে বেদে পরিবার রয়েছে প্রায় অর্ধশতাধিক বেদে নারী পুরুষের পরিবারের মত। এরা বর্তমানে কর্মহীন হয়ে নিজ গৃহে অবস্থান করছেন। এদের একটু হলেও দুর্ভোগ লাঘব হবে তাই তাদের মাঝে ১০ কেজি চাল, ৫ কেজি আলু ২ কেজি পিয়াজ, ২লিটার সয়াবিন তৈল, ২ কেজি মশুরির ডাল বিতরণ করেছি। আশা করছি এতে করে এ বেদে পরিবারগুলোকে কয়েকদিনের জন্য আর খাবারের চিন্তা করতে হবে না। এসময় সাথে ছিলেন ইন্সপক্টের তদন্ত বাহলুল খান বাহার, সহ পুলিশ সদস্যরা।ভৈরব থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ শাহিন বলেন আমরা সবার ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দেবার চেষ্টা করবো। করোনা ভাইরাসের ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। কোথাও আড্ডা বা চা এর দোকানে ভিড় করা যাবে না। সবাই এ ব্যাপারে সচেতন থাকতে হবে।

No comments:

Post a Comment

Pages