ড্রেজার দিয়ে মাতারবাড়ী সৈকত খনন-আ'লীগ সভাপতির কঠিন হুশিয়ারি ||amarkhobor24 - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Thursday, April 16, 2020

ড্রেজার দিয়ে মাতারবাড়ী সৈকত খনন-আ'লীগ সভাপতির কঠিন হুশিয়ারি ||amarkhobor24

মিছবাহ উদ্দীন আরজু, মহেশখালী (কক্সবাজার) প্রতিনিধি::

করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ এর কারণে চলমান সময়টুকু কষ্টে অতিবাহিত করে যাচ্ছে দেশের জনসাধারণ। করোনা সংক্রমণের ভয়ে দেশের সকল জনসমাগমপূর্ণ কাজ-কর্ম আপাতত বন্ধ রেখেছে বাংলাদেশ সরকার। অনেক জেলা লকডাউন ঘোষণা করেছেন কতৃপক্ষ, যার কারণে হাজার হাজার শ্রমিক কর্মহারা অবস্থাই ঘরে বসে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলছেন। 
দেশের এমন ক্রান্তিলগ্নের সময়টুকুতে একদল ভূমিদস্যু দেশের সৌন্দর্য নষ্ট করে সুযোগ কাজে লাগিয়ে টাকা ইনকামের ধান্দায় কাজ করে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। 

মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী ইউনিয়নে উত্তর-দক্ষিণে চলমান রয়েছে বাংলাদেশ সরকারের বৃহৎ প্রকল্প ১২০০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন তাপ ভিত্তিক কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাজ, এবং মাতারবাড়ী-ধলঘাটাতে দেশের গভীর সমুদ্র বন্দর হতে যাচ্ছে; যেখানে ইতোমধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাসম্পন্ন ড্রেজারগুলো মাটি খননে কাজ করে যাচ্ছে দিনরাত।

এই সুযোগটি কাজে লাগিয়ে মাতারবাড়ী ইউনিয়নের পশ্চিমে অবস্থিত ইউনিয়নটির সৌন্দর্য বহনকারী সমুদ্র সৈকতের সৌন্দর্য ধ্বংস করে যাচ্ছে একদল ভূমিদস্যু অবৈধভাবে ড্রেজারের মাধ্যমে; উপজেলা প্রশাসন মহেশখালীর নির্দেশনা ছিল সমুদ্রের গভীরস্থান হতে বালি উত্তোলন করার জন্য তারপরেও এমন নির্দেশনা অমান্যকরে এই ভূমিদস্যুরা ড্রেজারের মাধ্যমে বালুকাময় সৈকতের তীরের বালি উত্তোলন করে নিয়ে যাচ্ছিল। তাঁদের এই নির্দেশনা অমান্য করার মূল ক্ষমতার উৎস কোথায় জানতে তৎপর এলাকাবাসী? মাতারবাড়ীর পশ্চিমে সমুদ্রে এস.আলম কোম্পানীর অনেক ড্রেজার দেখা যায় যারা বালি কনন করতেছিল সমুদ্রের মাঝঅংশ হতে। 

মাতারবাড়ী সৈকতের তীর ঘেঁষে 'রাব্বি জিদনী ইলমা ড্রেজার' নামের ড্রেজারের দ্বারা বালি উত্তোলনকারীদের মূল হোতা  ভূমিদস্যুরা হলো স্থানীয় মাতারবাড়ী ইউনিয়নের সিকাদার পাড়ার নাছির উদ্দিনের ছেলে সাকের উল্লাহ্ এবং হোছাইন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জামিরুল ইসলাম এবং কক্সবাজার-২ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিকের নির্দেশে গতকাল ১৫ ই এপ্রিল বিকাল ৩টার দিকে মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জিএম ছমি উদ্দিনের নেতৃত্বে অভিযান চলে মাতারবাড়ী সৈকতে যেখানে সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন, মাতারবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবকে সহ-সভাপতি আজিজ মোহাম্মদ জাকেরিয়া, স্থানীয় গ্রাম পুলিশ এবং জনসাধারণ।

এমতাবস্থায় মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জিএম ছমি উদ্দিন তাঁদেরকে বলেন, সৈকত হতে এধরনের অবৈধ বালি উত্তোলনের কারণে একদিন আমাদের মাতারবাড়ী বেড়িবাঁধ  বিলীন হয়ে যেতে পারে সমুদ্রে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেখানে জনসাধারণের ক্ষতি করে উন্নয়ন কাজ চালিয়ে না যেতে বলেছে সেখানে আপনারা কিভাবে জনসাধারণের ক্ষতি সহ অবৈধ ভাবে সৈকত হতে বালি উত্তোলন করতেছেন?

তাত্ক্ষণিক ড্রেজারের দ্বারা অবৈধ বালি উত্তোলনকারীদের মূল হোতা সাকের উল্লাহ এবং হোছাইন উক্ত স্থানে উপস্থিত হলে জিএম ছমি উদ্দিন বলেন, আজকের মধ্যে যদি এই সৈকত হতে বালি উত্তোলন বন্ধ না হয় তাহলে ড্রেজারসহ সকলকে পুলিশি হেফাজতে যেতে হবে বলে হুশিয়ারি দেন; যা আমরা জানতে পারি আজিজ মোহাম্মদ জাকেরিয়ার ফেসবুক লাইভ হতে। ফেসবুক লাইভে জাকেরিয়া বলেন, এধরনের সৈকত খননের মাধ্যমে বেড়িবাঁধের ভেঙ্গে যেতে পারে। এধরনের কাজ সমূহ মাতারবাড়ীর যেখানে দেখা যাবে সেখানে স্থানীয় ছাত্র সমাজ এবং সাধারণ জনগণকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

এছাড়া, দেশের এমন করোনা মহামারীতে শিল্পনগরী নারায়নগঞ্জকে করোনা ভাইরাসের হটস্পট বলে চিহ্নিত করেছেন বাংলাদেশ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। নির্ভরযোগ্য সূত্রে আমরা জানতে পারি যে, নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা অনেকে শ্রমিক এধরনের ড্রেজারে কাজ করে যাচ্ছে যারা প্রতিনিয়ত চায়ে আড্ডা দিয়ে যাচ্ছে স্থানীয় বেড়িবাঁধ এলাকায়। এব্যাপারে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন এলাকাবাসী। 

আমাদের মহেশখালীর প্রতিনিধি মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জিএম ছমি উদ্দিন-এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, মাতারবাড়ী সৈকত হতে এভাবে বালি উত্তোলন করা ফলে আগের সেই সমুদ্র খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না, এমন পরিস্থিতি বিরাজ করলে মাতারবাড়ী বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে পানির নিচে তলিয়ে যাওয়া সময়ের ব্যাপার মাত্র। তাছাড়া আমি আওয়ামী লীগের সভাপতি বলে নয় এধরনের কাজ রুখতে সকলকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসতে হবে।

No comments:

Post a Comment

Pages