অসহায় হিন্দু পরিবারকে ভিটেবাড়ী থেকে উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র!! - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Wednesday, February 12, 2020

অসহায় হিন্দু পরিবারকে ভিটেবাড়ী থেকে উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র!!

উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিনিধিঃ 
নন্দীপাড়ায় ২১ শতক জায়গা নিয়ে পাঁচ ভাইয়ের মৌরসী বসত ভিটা। যে যার জায়গায় কাঁচা পাকা ঘরবাড়ি বানিয়ে পঞ্চাশ বছরের বেশি সময় থেকে বসত করে আসছে। একপঞ্চমাংশের মালিক অনন্ত নন্দী নিজ অংশে কাঁচা ঘর বানিয়ে বসত করে আসছিল। উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিনিধি জানান,অনন্ত নন্দীর মৃত্যুর পর তার তিন ছেলে একই ঘরে দক্ষিনে বড় ছেলে রুপন নন্দী, মধ্যে তপন নন্দী এবং উত্তরে ছোটন নন্দী কক্ষ ভাগ করে বসত করে আসছিল। পারিবারিক কলহের রেশ ধরে বড় ভাই আর ছোট ভাই এই বসত ভিটার পাঁচ শরিক এবং মেঝ ভাই তপন নন্দী এর কাছে গোপন রেখে জনৈক সৈয়দ নাছিমা আকতার স্বামী মোঃ নুর উদ্দিন নামক ব্যক্তির কাছে নিজেদের অংশ বিক্রি করে দেয়। বিগত ২৮/০১/২০২০ তারিখ অজানা অচেনা ব্যক্তি নিয়ে এসে ভিটে বাড়ীর দখল নিতে আসলে তপন নন্দীর স্ত্রী বাধা দিতে আসলে উনাকে মারধর করে এবং ঘর থেকে বের হয়ে না গেলে মামলা হামলার হত্যার হুমকি দেয় যা হাটহাজারী থানায় সাধারণ ডায়েরি হয়।

অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিনে দেখা গেছে উক্ত এলাকায় ২২ টি হিন্দু পরিবার আশে পাশের মুসলমান সম্প্রদায়ের সাথে খুবই সৌহার্দ্যপূর্ন সম্প্রতির সাথে আবাহমান কাল ধরে অবস্থান করছে। বিবাদমান ভিটের উওর ও দক্ষিন পাশের জায়গা ৯ ফুট করে প্রসস্থ যেখানে কোন ধরনের বসত বাড়ী করা অসম্ভব এবং উক্ত জায়গার আশে পাশে ক্রেতা সৈয়দ নাছিমা আকতারের কোন আত্মীয় স্বজনের বসত ও নাই।

এটা স্পষ্ট যে এত স্বল্প পরিসর জায়গায় স্থাপনা সম্ভব নয় জেনেও এই জায়গা ক্রয় করার উদ্দেশ্যে তপন নন্দীর পরিবারকে উচ্ছেদ করা।

আমরা বিশ্বাস করি ন্যায় বিচার পাওয়ার অধিকার ধনী গরীব, সকল ধর্মের সকল মানুষের। এই অসহায় পরিবারকে যে যার অবস্থান থেকে সহযোগীতা করে উচ্ছেদের হাত হতে রক্ষা করার উদাত্ত আহ্বান জানাই। চট্টগ্রাম হাটহাজারী উপজেলার সরকারহাট মির্জাপুর পশ্চিম নন্দীপাড়ায় ২১ শতক জায়গা নিয়ে পাঁচ ভাইয়ের মৌরসী বসত ভিটা। উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিনিধি।

No comments:

Post a Comment

Pages