ভারতে ভয়াবহ রূপ নিতে পারে করোনাভাইরাস:মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Saturday, February 29, 2020

ভারতে ভয়াবহ রূপ নিতে পারে করোনাভাইরাস:মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা

ভারতে করোনাভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা। তারা বলেছে, উপমহাদেশটিতে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়লে তা হবে ভয়াবহ। মার্কিন গোয়েন্দা সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
চীনের বাইরেও অন্যান্য দেশে করোনাভাইরাসের গতিবিধির ওপর বিশেষ নজর রাখছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা। কোন দেশের সরকার করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কতটা প্রস্তুত, সেদিকেও নজর রাখা হচ্ছে। সেই পর্যবেক্ষণ করতে গিয়ে ভারত প্রসঙ্গে এই মন্তব্য করেছে।

ভারতে এখনও পর্যন্ত হাতে গোনা কয়েকজনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে। কিন্তু ঘনজনসংখ্যার এই দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ করার ক্ষমতা অত্যন্ত সীমিত বলে মনে করছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা। তাই চীনের পরে করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য ক্ষেত্র হিসেবে যে দেশ তাদের সবচেয়ে চিন্তায় রেখেছে তা হলো ভারত। করোনাভাইরাসের হামলা ঠেকাতে যতটা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হয়, তা এই দেশের বেশিরভাগ জায়গাতেই নেই বলে মনে করছে তারা।
করোনাভাইরাসের হামলায় ইরানের পরিস্থিতি নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা। ইরানেও যেভাবে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ছে তা অত্যন্ত আশঙ্কার বলে মনে করা হচ্ছে।
দেশটিতে করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। হাসপাতাল সূত্রের বরাত দিয়ে শুক্রবার (২৮ ফেব্রæয়ারি) মধ্যরাতে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে অন্তত ২১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।
মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে ইরানেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইরানের এক সাবেক রাষ্ট্রদূতের মৃত্যু হয়েছে। তিনি ভ্যাটিকান নগরীতে ইরানের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।
যুক্তরাষ্ট্র সরকারের একটি সূত্র জানিয়েছে, করোনাভাইরাস ঠেকাতে ইরান যে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে তা অকার্যকর প্রমাণিত হয়েছে। আর এই প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে দেশটির সক্ষমতা যৎসামান্য বললেই চলে।
আরেকটি সূত্র বলেছে, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় কিছু উন্নয়নশীল দেশের সরকারের সক্ষমতা নিয়েও উদ্বিগ্ন যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা।
বৈশ্বিক করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে গোয়েন্দা সংস্থার পাঠানোর একটি খসড়া ইতোমধ্যে হাউস অব রিপ্রেজেন্টিটিভের গোয়েন্দা কমিটির হাতে পৌঁছেছে। হাউস অব রিপ্রেজেন্টিটিভের গোয়েন্দা কমিটির এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ‘কমিটি আইসি (ইন্টেলিজেন্স কমিউনিটি) থেকে করোনার বিষয়ে একটি ব্রিফিং পেয়েছে। এবং এই প্রাদুর্ভাবের বিষয়ে প্রতিদিনই আপডেট আসছে।’
শুধু তথ্য সংগ্রহই নয়, ইউএস সেন্টার ফর ডিজিসেস কন্ট্রোলের মতো স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা।
বিশ্বব্যাপী ৫৪টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৮৫৮ জনের। আক্রান্ত হয়েছে ৮৩ হাজার ৩৭৯ জন। অপরদিকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৬ হাজার ৪৩৬ জন।
সর্বশেষ নিউজিল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, নাইজেরিয়া, বেলারুশ ও লিথুয়ানিয়াও নিজেদের দেশে প্রথম করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী পাওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে। এশিয়া, ইউরোপ, আমেরিকা, আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া-কোনো মহাদেশ বাদ যায়নি এই ভাইরাসের আক্রমণ থেকে।
বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকে ‘সর্বোচ্চ ঝুঁকি’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সংস্থাটির ঝুঁকি নির্ণয়ে এটি সর্বোচ্চ ধাপ। সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান ড. টেড্রস অ্যাডহানম গেব্রেইয়েসুস এই ঘোষণা দেন বলে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। 

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া, ফক্স নিউজ, নিউইয়র্ক টাইমস,দৈনিক ইনকিলাব  

No comments:

Post a Comment

Pages