রাজশাহী নগরীতে পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে ছাত্রলীগ নেতা রতন বহিষ্কার - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Wednesday, February 26, 2020

রাজশাহী নগরীতে পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে ছাত্রলীগ নেতা রতন বহিষ্কার

স্টাফ রিপোর্টার,রাজশাহী: রাজশাহী মহিলা কলেজ কেন্দ্রে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনার্স ৩য় বর্ষের পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে রতন মাহাবুব মানিক নামে এক পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বুধবার (২৬ফেব্রুয়ারী) দুপুরে সংবাদ মাধ্যমকে বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মহিলা কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর সাব্রিনা সাহনাজ চৌধুরী।
বহিস্কৃত রতন রাজশাহী কলেজের দর্শন বিভাগের শিক্ষার্থী। বর্তমানে সে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, রাজশাহী কলেজ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক পদে রয়েছে।

এদিকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনার্স ৩য় বর্ষের পরীক্ষা শেষ হয়েছে গতকাল মঙ্গলবার।

জানা গেছে, গত ২২ তারিখে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে রাজশাহী মহিলা কলেজে অনার্স ৩য় বর্ষের পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ভারতীয় দর্শন পেপারের পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করে রতন মাহাবুব মানিক। এসময় কলেজের ২০৫ নং কক্ষে পরীক্ষা দায়িত্বরত শিক্ষক তাকে ধরে ফেলে। পরে তাকে বহিষ্কার করেন ওই শিক্ষক।

কতো বছরের জন্য তাকে বহিষ্কার হয়েছে এমন প্রশ্নে রাজশাহী মহিলা কলেজের এক শিক্ষক বলেন, বহিষ্কার কতো বছরের জন্য করা হবে তা ঠিক করবে  জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে সৃংঙ্খলা কমিটি। আমরা শুধু তাকে বহিষ্কার করেছি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ২০৫ নং কক্ষের পরীক্ষার্থী জানান, পরীক্ষার শুরু থেকেই রতনের পরিবর্তে দর্শন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী তার প্রক্সি দিয়ে আসছিলো। পরে তার পরিবর্তে মাস্টার্স এর এক শিক্ষার্থীকে চাপ প্রয়োগ করে তরনে জায়গায় পরীক্ষা দিয়ে আসছিলো। কিন্তু গত শনিবার পরীক্ষায় দায়িত্বরত শিক্ষকের সন্দেহ হলে প্রবেশ পত্রের সাথে চেহারার মিল না পেলে তাকে হল থেকে বের করে দেন।

আরেক এক শিক্ষার্থী বলেন, ওই দুই শিক্ষার্থীকে তাদের গার্লফ্রেন্ডের বিষয়ে ব্ল্যাকমেইল করে পরীক্ষায় প্রক্সি দেয়াচ্ছিল ছাত্রলীগ নেতা রতন।

তবে মহিলা কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর সাব্রিনা সাহনাজ চৌধুরী জানান, রতন নিজেই পরীক্ষায় বসেছিলো। এসময় পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করায় তাকে বহিষ্কার করা হয় বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেফতারকৃত  রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাইমুল হাসান নাঈমের অনুসারী। নাঈমের নেতৃত্বে ও নির্দেশে ক্যাম্পাসে সকল অপকর্ম সম্পাদন করে রতন। এর আগে বিভিন্ন সময় নিরীহ ছাত্রদের মাধরধর, ক্যাম্পাস সাংবাদিকদের লাঞ্চিত করা, কলেজের গাছের গুড়ি চুরিসহ বিভিন্ন অপকর্মের নায়ক এই রতন।

No comments:

Post a Comment

Pages