নাগরপুরে অভাবের তাড়নায় আত্মহত্যা করল আলম - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Wednesday, January 29, 2020

নাগরপুরে অভাবের তাড়নায় আত্মহত্যা করল আলম

মোঃ আব্দুর রাজ্জাক রাজা টাংগাইল প্রতিনিধিঃ টাংগাইলের নাগরপুরে অভাবের তাড়নায় রাগে ক্ষোভে  আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে খন্দকার আলম(৫৫) নামে এক ব্যক্তি। 
বুধবার(২৯ জানুয়ারি ২০২০),উপজেলার ভাদ্রা ইউনিয়নের সিংদাইর গ্রামের মৃত খন্দকার হালিমের ছেলে খন্দকার আলমকে(৫৫) নিজ ঘরের বারান্দায় গলায় রশি বেধে রুয়ার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়  স্ত্রী। এরপর পরিবারের লোকজন দেহটিকে ধরাধরি করে নিচে নামায় এবং জীবিত আছে ভেবে পানি ঢালতে থাকে।তারপর গ্রাম্য ডাক্তার ডেকে আনলে সে মৃত বলে ঘোষনা করে।এদিকে মৃতের স্ত্রী জানান,সে বিকেল বেলায় পাশের ক্ষেতে শাক তুলতে যায় এবং কিছুক্ষণ পরে বাড়িতে আসলে দূর্ঘটনাটি দেখতে পায়। স্ত্রীর দাবি তার স্বামী তাদের বিয়ের পর থেকেই দীর্ঘদিন যাবত পেটের ব্যথায় ভুগতেছিল।কিন্তু এ সংক্রান্ত কোন চিকিৎসা পত্র তিনি দেখাতে পারেন নি। 

এদিকে,মৃত আলম অর্থের অভাবে অসহায়ভাবে দিনাতিপাত করছিল।তার একমাত্র ছেলে বিদেশে থাকলেও পিতাকে অার্থিক কোন সহযোগিতা করে নাই বলে অভিযোগ রয়েছে।তাছাড়া মৃতের একমাত্র মেয়ে কিছু অর্থ দিয়ে সাহায্য করলেও আর তাকে সহায়তা করবে না বলে জানিয়ে দেয়।মনের দুঃখে আলম এই নিষ্ঠুর পৃথিবী থেকে মুক্তি পেতে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।

এ বিষয়ে নাগরপুর থানার এস.আই দয়াল জানান,ময়নাতদন্তের জন্য লাশ টাংগাইল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Pages