খুলনায় মুজিববর্ষ ও স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Friday, January 10, 2020

খুলনায় মুজিববর্ষ ও স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন

শেখ নাসির উদ্দিন, খুলনা প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে এক হাজার ৯২০ শিশুর কণ্ঠে শোনা গেল ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ।
মুজিববর্ষ উদযাপন ও স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় খুলনা জেলা স্টেডিয়ামে এ আয়োজন করা হয়।
বঙ্গবন্ধু ১৯২০ সালে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। সেই বিষয়টি মাথায় রেখেই এই আয়োজনে এক হাজার ৯২০ শিশুর অংশগ্রহণ। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) ভাষণ দিয়েছিলেন বাংলাদেশের রূপকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান। আজকের অনুষ্ঠানে শিশুরা বঙ্গবন্ধুর ১৯ মিনিটের সেই ভাষণ নিজেদের কণ্ঠে ধারণ করে।

এরপর সাড়ে ১১টায় ১৫ আগস্টে শহীদ এবং স্বাধীনতা যুদ্ধে প্রাণ দেয়া ৩০ লাখ শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় ১৯২০ জন আলেম দোয়া ও মোনাজাত করেন। অনুষ্ঠানটিতে সহস্রাধিক মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ ও জনপ্রতিনিধিরা মুজিবকোট পড়ে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া জেলা স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে ভাষণ শুনতে সর্বসাধারণের উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো।

এর আগে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে তোপধ্বনির মাধ্যমে কাউন্টডাউন প্রথম প্রহরে মুজিববর্ষ সূচনা করা হয়। সকাল সাড়ে ৯টায় বঙ্গবন্ধুর ওপর ডকুমেন্টারি প্রদর্শন, সোয়া ১০টায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়।

এদিকে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনার জন্য জেলায় ১৯টি মেশিন বসানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। এরমধ্যে নগরীর সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনাল ও শহীদ হাদিস পার্ক, খুলনা সার্কিট হাউজ, জেলা প্রশাসক কার্যালয়, বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়সহ জেলার রূপসা, তেরখাদা, দিঘলিয়া, কয়রা, বটিয়াঘাটা, দাকোপ, পাইকগাছা, ডুমুরিয়া ও ফুলতলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কার্যালয়ে কাউন্টডাউন ওয়াচ স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া খুলনা সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে নগরীর দৌলতপুরস্থ সেভ এন সেইফ, জোড়াগেট মোড়সহ মোট পাঁচটি স্থানে এ ওয়াচ স্থাপন করা হয়েছে।

আজ বিকেলে তেজগাঁও বিমানবন্দরে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন বঙ্গবন্ধুকন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। খুলনা নগরীর শহিদ হাদিস পার্কে বসানো জায়ান্ট স্ক্রিনে অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করা হবে।

No comments:

Post a Comment

Pages