বিতর্ককে ইতিবাচকভাবে দেখছেন আবেদা আক্তার |amarkhobor24.com - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Monday, January 6, 2020

বিতর্ককে ইতিবাচকভাবে দেখছেন আবেদা আক্তার |amarkhobor24.com

ডিএনসিসি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত সাধারণ ১৭ ও সংরক্ষিত ৪৯,৫০,৫১ নং ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলর প্রার্থী আবেদা আক্তারকে নিয়ে চলছে বিতর্ক। স্বামীর পরিবারের সদস্যরা ডিএনসিসির অন্যান্য ওয়ার্ডগুলো থেকে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হওয়ায় প্রশ্ন তুলেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। ইতিমধ্যে এই নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর দলীয় মনোনয়ন বাতিলের দাবী জানিয়েছেন ওয়ার্ডটি গতবারের নির্বাচিত কাউন্সিলর জাকিয়া সুলতানা ও সংরক্ষিত আসন থেকে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী দলের সহযোগী সংগঠন বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরের সহ-সভাপতি মার্জিয়া খাতুন স্বর্ণা। সম্প্রতি এ নিয়ে একটি মানববন্ধনও করেন তারা। যা নিয়ে একাধিক গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।
তবে, এসব ঘটনাকে ইতিবাচকভাবেই দেখছেন আসনটিতে দলীয় (আওয়ামী লীগ) মনোনীত প্রার্থী আবেদা আক্তার। তার মতে, “আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ এনে প্রচার করা হচ্ছে এতে করে মানুষ আগের চেয়ে আমাকে আরও ভালো করে জানার সুযোগ পাচ্ছে। এটিকে আমি ইতিবাচকভাবেই দেখছি।”

এদিকে, প্রকাশিত সংবাদে স্বামী ফিরোজ জামানের জামায়াত-বিএনপি’র সাথে সম্পৃক্ততা ও শশুর শান্তি কমিটিতে থাকার বিষয়টিকে ভিত্তিহীন বলে দাবী করেছেন আবেদা আক্তার। তার দাবী, আমার শশুর আমার বিয়ে হওয়ার আগে অর্থ্যাৎ ২৭ বছর আগে মারা গেছে। তিনি একজন স্বনামধন্য মাদবর ছিলেন। একজন মৃত ব্যক্তিকে নিয়ে বিতর্ক করা উচিত নয়। তবে, ভাসুরসহ অন্যান্য আত্মীয়রা বিএনপি’র মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থীতার ব্যাপারে তিনি জানান, বিশ বছর আগে স্বামীর পরিবারের সাথে মতপার্থক্যের কারণে পরিবার ছেড়ে স্বামী-সন্তান নিয়ে আলাদা বসবাস করছেন তারা।

অপরদিকে, এবারের কাউন্সিলর নির্বাচনে দলীয় (আওয়ামী লীগ) মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে, দল পর্যাপ্ত তথ্য যাচাই-বাছাই করে যোগ্য মনে করেছেন বিধায় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছেন বলে প্রতিবেদককে জানিয়েছেন আবেদা আক্তার।

No comments:

Post a Comment

Pages