মাওলানা সানাউল্লাহ নুরী একজন গবেষক আলেম ||amarkhobor24 - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Saturday, January 18, 2020

মাওলানা সানাউল্লাহ নুরী একজন গবেষক আলেম ||amarkhobor24

মাওলানা সানাউল্লাহ নুরী মাহমুদী একজন যুগ সচেতন,প্রজ্ঞাবান, বিচক্ষণ ও মেধাবী অালেম।তিনি নম্র, ভদ্র, সদালাপী ও মিষ্টভাষী।তিনি বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ইসলামী দল ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগর এর সাংগঠনিক সম্পাদক।তাছাড়া তিনি ভালো ওয়ায়েজও বটে।গতানুগতিক বিতর্কিত বয়ানে তিনি বিশ্বাসী নয়।তিনি নিয়মিত গবেষণা করেন।তার বেশ কিছু বয়ান আমি শুনেছি।বয়ান শুনে এবং স্বশরীরে তাঁর কুতুবখানা পরিদর্শনে গিয়ে বুঝতে পারলাম তিনি নিয়মিত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে অধ্যয়ন করেন। বিশাল গ্রন্থগার দেখে আমি অবাক না হয়ে পারিনি।ধর্মীয় থেকে রাজনৈতিক বিজ্ঞান থেকে দর্শন সকল প্রকার বইয়ের বিশাল সমাহার।এমন বিশাল গ্রন্থগারে বসে আমি সস্থির নিঃশ্বাস ফেলেছি।সবচেয়ে বেশি অবাক হয়েছি তাঁর ব্যক্তিগত গ্রন্থগারের জন্যে ১৮-১৯ লাখ টাকার কিতাব/ বই ক্রয় করেছেন।আরো জানান, সব নিজের টাকায় ক্রয় করেছের তিনি।
বয়ানের ময়দানে আজ মিথ্যা কল্পকাহিনীর সয়লাব। বিতর্কের জন্ম দিচ্ছে কিছু কিছু ওয়ায়েজ।যারা বয়ান করেন তাদের উচিত নিয়মিত অধ্যয়ন ও সত্যানুসন্ধান করা।বিভিন্ন বিষয়ে গভীর জ্ঞান না থাকার কারণে বয়ানের ময়দানে ইসলাম পরিপন্থী কথা বলতেও দ্বিধাবোধ করছে না।আর অশিক্ষিত, অল্প শিক্ষিত শ্রুতারা শুনে বিশ্বাস করছে।কোন হক্কানি আলেম বিতর্কিত বয়ানের ব্যাপারে কথা বলতে গেলে শিকার হচ্ছে গালমন্দের।বক্তাদের কিছু অন্ধভক্ত হক্কানি আলেমদের কুরুচিপূর্ণ ভাষায় গালিগালাজ করে সোশ্যাল মিডিয়া বিষাক্ত করে তুলছে।বিষিয়ে তুলছে যুগ সচেতন হক্কানি আলেম সমাজকেও।এসব বিতর্কের অন্যতম কারণ বক্তাগণ ভাসা ভাসা জ্ঞান নিয়ে লাখ শ্রুতাদের মাঝে বয়ান  করতে যায়।আমি মনে করি প্রত্যেক ওয়ায়েজ বা বক্তাদের উচিত গভীরভাবে অধ্যয়ন করে মাহফিলে বয়ান করতে যাওয়া।যেসব বক্তার বয়ানে লাখ লোক হয় তাদের বিতর্কিত বয়ানের কারণে লাখ লাখ যুবক বৃদ্ধ নারী পুরুষ বিতর্কিত বয়ান বিশ্বাস করে বিপদগ্রস্ত হচ্ছে।
মাওলানা সানাউল্লাহ নুরী সাহেব ১৯৯৯সালে এশিয়ার অন্যতম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় জামিয়া পটিয়া থেকে দাওরায়ে হাদিস( মাস্টার্স)  সফলতার সাথে সমাপ্ত করেন।তখন থেকে বয়ানের ময়দানে দ্বীনের দাওয়াত দিচ্ছেন।স্বাভাবিকভাবেই তিনি বিতর্ক এড়িয়ে চলেন।টেকনাপ থেকে তেতুলিয়া রূপসা থেকে পাথুরিয়া বয়ানের ময়দানে পদাচারণা করছেন।তিনি গভীর অধ্যয়নের মাধ্যমে বয়ান করতে চেষ্টা করেন।তাঁর দূরদর্শীতা, বই প্রেমী মনোভাব আমার সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে।গতকাল ১৮/০১;২০২০ শনিবার প্রায় ৪-৫ ঘন্টা তাঁর সাথে ছিলাম।বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি।খুব সহজে,  সাবলীল ও প্রাঞ্জল ভাষায় উত্তর দিয়েছেন।বাজারি বক্তাদের ভীড়ে  এসব গবেষক,নির্মোহ, প্রজ্ঞাবান আলেসদের কদর কমে যাচ্ছে।কথায় আছে যে দেশে গুণীদের কদর নেই সেদেশে গুণীরা জন্ম গ্রহণ করেনা।আসুন বাজারি বক্তা নয় সচেতন,প্রজ্ঞাবান,হক্কানি অালেমদেে কদর করি।তবেই সমাজ ও দেশ সুন্দর হবে।

লেখকঃনুর আহমদ সিদ্দিকী

No comments:

Post a Comment

Pages