ভারতের মুসলমানদেরকে রক্ষায় বিশ্বমুসলিমকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Sunday, December 22, 2019

ভারতের মুসলমানদেরকে রক্ষায় বিশ্বমুসলিমকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব প্রিন্সিপাল মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, ভারতে পাশ হওয়া নতুন নাগরিকত্ব আইন সেদেশের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারের মুসলিম বিদ্বেষেরই নগ্ন বহিঃপ্রকাশ। এ আইনের মাধ্যমে ভারতীর মুসলমানদের রাষ্ট্রহীন করার ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। বিশেষ করে আসামে এনআরসিতে বাদ পরা হিন্দুদের নাগরিকত্ব দিয়ে মুসলমানদের নারিকত্বহীন করা ঘৃণ্য পদক্ষেপ হচ্ছে ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন। কোন সভ্য দেশ এ রকম সাম্প্রদায়িক আইন করতে পারে না। ভারতের এ আইন হবে মুসলমানদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের হাতিয়ার। এ সাম্প্রদায়িক আইন বাতিল করতে হবে। তিনি এই বিলের তীব্র সমালোচনা করে বলেন, এতে ভারতে ক্ষমতাসীন চরম হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকারের মুসলিম বিদ্বেষেরই নগ্ন বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। এতে ভারতীয় মুসলমানদের দেশ ছাড়া করার চক্রান্ত করছে ভারত।
গতক শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর কাজলা কমিউনিটি সেন্টারে ইসলামী যুব আন্দোলন যাত্রাবাড়ী থানা শাখার ওয়ার্ড প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। থানা সভাপতি মাওলানা ওবায়দুল্লাহর সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারী মাওলানা নাছির উদ্দনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন ইসলামী আন্দোলন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, যাত্রাবাড়ী থানা সভাপতি আলহাজ্ব ইসমাঈল হোসেন, যুব আন্দোলন দক্ষিণ সভাপতি মুফতী মানসুর আহমাদ সাকী। সম্মেলনে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ, ছাত্র নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। 
 
মাওলানা ইমতিয়াজ আলম বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নাগরিকদের মধ্যে বিভাজন করেছেন ধর্মের ভিত্তিতে। ভারতে মুসলমানদের নাম নিশানা মুছে ফেলার অংশ হিসেবে তাঁদের ঐতিহাসিক স্থাপনা ও স্থানের নাম পরিবর্তন করা হচ্ছে। তিনি বলেন, বিজেপি সরকারের ‘এক দেশ, এক জাতি, এক ধর্ম’ দর্শনই ধর্মনিরপেক্ষ ভারতকে করে তুলেছে বেসামাল।

No comments:

Post a Comment

Pages