চৌহালীতে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস উপলক্ষে কুইজ ও চিত্রাস্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Thursday, December 12, 2019

চৌহালীতে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস উপলক্ষে কুইজ ও চিত্রাস্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

চৌহালী সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ“সত্য মিথ্যা যাচাই আগে, ইন্টারনেটে শেয়ার পরে” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে সিরাজগঞ্জ চৌহালীতে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস পালিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এ উপলক্ষ্যে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্ত্বর থেকে র‌্যালিটি শুরু হয়ে উপজেলার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদের কাঁঠাল বাগানে এসে শেষ হয়।
র‌্যালি শেষে উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোঃ দেওয়ান মওদুদ আহমেদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ফারুক হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা প্রকৌশলী কর্মকর্তা মোঃ সাখাওয়াত হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিব, উপজেলা বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ মজনু মিয়া, সহকারী প্রোগ্রামার তথ্য প্রযুক্তি কর্মকর্তা শম্পা কর্মকার, উপজেলা তথ্য ও সেবা কর্মকর্তা মোছাঃ তামান্না হক,

অতিথি হিসেবে ছিলেন, মোঃ আবুল কালাম মাষ্টার, মোঃ ফজলুল হক, মোঃ গোলাম মোস্তফা, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আরিফ সরকার উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ আব্দুর রহিম রেজা, সহ প্রমুখ। বিভিন্ন বক্তারা ডিজিটাল বাংলাদেশ সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে থাকেন।

সেমিনারে প্রধান অতিথি মোঃ ফারুক হোসেন বলেন, গুজব ছড়ানোর গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হয়ে উঠেছে ইন্টারনেট ভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউব, হোয়াটস অ্যাপ। মানুষ সত্যাসত্য যাচাই না করেই বিভিন্ন বিভ্রান্তমূলক তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেন। যা সমাজ এবং রাষ্ট্রের জন্যে হুমকি স্বরূপ। এর ফলে নিমেষেই বড় ধরণের ক্ষতি হতে পারে। আবার এই গুজব না বুঝেই শেয়ার করে অনেক মানুষই বিপদগ্রস্ত হন। তাই সত্যতা যাচাই না করে কেউ লাইক বা শেয়ার করবেন না। তিনি আরও বলেন, এক নেতার ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ ভিশন এখন ১৬ কোটি মানুষের ভিশনে পরিণত হয়েছে। ২০০৮ সালে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ ভিশন ছিল শেখ হাসিনার। সেটা ২০০৯ সালে পরিণত হয় সরকারের ভিশনে। তার ঠিক ১১ বছর পর এসে সেই ভিশন এখন দেশের ১৬ কোটি মানুষের ভিশনে পরিণত হয়েছে।

বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা, বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন শ্রেনীশোর মানুষ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে কুইজ প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

No comments:

Post a Comment

Pages