রামগঞ্জে মাকে দাফন করে এসেই বড় ছেলের মৃত্যু - amarkhobor24.com

শিরোনাম

Home Top Ad


Sunday, December 1, 2019

রামগঞ্জে মাকে দাফন করে এসেই বড় ছেলের মৃত্যু

১ ডিসেম্বর: শনিবার রাত ১১টায় মা হনুফা খাতুন (৯০) বার্ধক্যজনিত কারনে মারা যাওয়ার পরদিন মাকে কবরস্থ করার ঠিক ১ঘন্টা পর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বড় ছেলে শহিদ উল্যা (৬০)। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার রামগঞ্জ উপজেলার সোনাপুর আটিয়া বাড়ী (মসজিদ বাড়ী)তে। হনুফা খাতুন পৌর সোনাপুর গ্রামের আটিয়া বাড়ীর মৃত বাদশা মিয়া আটিয়ার স্ত্রী।
হনুফা খাতুনের ছোট ছেলে শফিক উল্যা জানান, শনিবার রাত ১০টায় তার বসতঘরে থাকা অসুস্থ্য মা’কে দেখতে গিয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হন বড় ভাই শহিদ উল্যা। এসময় বাড়ীর লোকজন বড় ভাই শহিদ উল্যাকে স্থানীয় একটি হসপিটালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যেতে বলেন। রাত বেশি হওয়ায় আজ রবিবার সকালে ঢাকা নেয়ার জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পর্ণ করা হয়।।

ঐদিন রাত ১১টায় বার্ধক্যজনিত কারনে আমার মা হনুফা খাতুন মারা গেলে আজ রবিবার সকাল ১০টায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করে ঘরে আসার কিছুক্ষন পর বড় ভাই শহিদ উল্যাও মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।
মা ও ছেলের মৃত্যুতে পরিবার ও গ্রামে শোকের ছায়া নেমে আসে। আজ রবিবার বিকাল ৪টায় মায়ের কবরের পাশে ছেলে শহিদ উল্যাকে দাফন করা হবে বলেও তিনি জানান।

নিউজ: রায়হানুর রহমান।
আমার লক্ষ্মীপুর ডটকম  

No comments:

Post a Comment

Pages