নিয়ন্ত্রণহীন পেঁয়াজের বাজারে লাগামহীন দামে মানুষ এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছে। তাই শ্যালক-শ্যালিকা ও শ্বশুর-শাশুড়িও রসিকতা করে জামাইকে ফলমূল কিংবা মিষ্টির পরিবর্তে পেঁয়াজ আনতে বায়না ধরছে। তাই শ্বশুরবাড়িতে জামাইরাও মিষ্টি কিংবা ফলমূলের পরিবর্তে নিচ্ছেন দেশের সবচেয়ে বহুল আলোচিত পেঁয়াজ। ঘটনাটি ঘটেছে ঢাকার উপকণ্ঠ ধামরাইয়ে।

ধামরাইয়ের আতুল্লারচর গ্রামের আবুল কাশেমের বাড়িতে শুক্রবার দিবাগত রাতে তার জামাই শেখ মো. রজব আলী আগের মতো মিষ্টি ও ফলমূল না এনে বাজার থেকে উপহার সামগ্রীর বাক্সে করে ১২ কেজি পেঁয়াজ আনেন। প্যাকেট খুলে পেঁয়াজ দেখে শ্বশুরবাড়ির লোকজন মহাখুশি। শুধু তাই নয়, এখন অন্য সব নামিদামি উপহারসামগ্রীর পাশাপাশি পেঁয়াজও অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রাধান্য পাচ্ছে। তাই বিয়ে ও জন্মদিনের অনুষ্ঠানে এখন উপহার দেয়া হচ্ছে পেঁয়াজ।